চিকিৎসা সেবা দিতে গিয়ে প্রাণ হারালেন ডাঃ দেবাশিষ – newsline71bd
শিরোনাম
নাটোর পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের কমিশনার প্রার্থী স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা শুভ”র গণসংযোগ!! গত ২৪ ঘণ্টা দেশে করোনা শনাক্ত-১৩২০,মৃত্যু-১৮ অসচ্ছলদের নামের তালিকা সচ্ছলদের নাম প্রকাশ!রামগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধাদের বাড়ি বরাদ্দে অনিয়মের অভিযোগ!! রামগঞ্জে নানান আয়োজনে কমিউনিটি পুলিশিং’ডে উদযাপন!! বিত্তবানরা নিজ এলাকার দুস্থ-অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান : প্রধানমন্ত্রী!! বরগুনার রিফাত হত্যা: বরিশাল কারাগারে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৩ আসামি!! ৩৫তম স্প্যান আবহাওয়া অনুকূলে থাকলেওপদ্মা সেতুতে বসছে আজ!! ঢাকায় মালয়েশিয়ার নতুন হাইকমিশনার যোগদান!! নিহত ২- লক্ষ্মীপুরে সিএনজি ও মোটরসাইকেল সংঘর্ষ!! রামগঞ্জে কওমি মাদ্রাসা ঐক্য পরিষদ ও ধর্মপ্রান মুসুল্লীদের বিক্ষোভ!!
রবিবার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন

চিকিৎসা সেবা দিতে গিয়ে প্রাণ হারালেন ডাঃ দেবাশিষ

রিপোটারের নাম / ২৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৩ জুন, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক নিউজ লাইন ৭১ বিড:

সিনিয়র সহকারী জজ উমা ঘর বেধেছিলেন ডা. দেবাশীষের সাথে। নিজে বিচারক বিয়ে করেছিলেন একজন চিকিৎসককে, ইচ্ছা হয়তো ছিলো সেবা ধর্মের। বিচার বঞ্চিতের জন্য ন্যায়বিচার, অন্যদিকে অসহায়দের ডাক্তারি সেবা। ভালোই চলছিলো উমা দেবাশীষের সংসার -কোল জুড়ে এসেছিলো এক ফুটফুটে সন্তান। হঠাৎ করেই উমার সংসারে হানা দিলো সর্বনাশা করোনা। মানব সেবা দিতে গিয়ে চিকিৎসক স্বামী হার মানলেন করোনার কাছে। স্বামীকে হারিয়ে নতুনভাবে চিনলেন আপনার আপন জনকে। চেনা জগৎটাই অচেনা হয়ে উঠলো। আড়াই বছরের অবুঝ সন্তান অন্যদিকে হাসপাতালের মর্গে স্বামীর মরদেহ। উমার পায়ের নীচে মাটি না থাকলেও শক্ত ভিত্তির উপর নিজেকে দাড় করালেন। একা এবং একাই আয়োজন করলেন স্বামীর শেষ যাত্রার, বাড়ি থেকে শিশু পুত্রের হাত ছুইয়ে পাটকাঠী সাথে নিয়ে আসলেন শহরের শশ্বান ঘাটে, শাস্ত্রমতে পুত্র সন্তানেরই যে দায়িত্ব পিতার মুখাগ্নিতে।একাই নিরবে নিথরে নির্জন শশ্বানভুমিতে অপেক্ষা করলেন উমাদেবী, কিছুক্ষনের মধ্যেই মৃতদেহ আসলো শশ্বানে, যে কয়জন মৃতদেহ নিয়ে এসেছিলো তাদের সাহায্যেই স্বামীর সৎকারের কাজ শুরু করলেন। উমা ভালোভাবেই বুঝেছিলেন নিজেদের বিপদকে উপেক্ষা করে যারা মানুষের বিপদে এগিয়ে আসে, তারাই প্রকৃত মানুষ। তাদের জাতের প্রয়োজন হয় না। পুত্রসন্তানের হাতের ছোয়া কাঠিতে মুখাগ্নি করলেন স্বামীর। ঘন্টা তিনেক স্থির হয়ে দাড়িয়ে রইলেন জলন্ত শশ্বানের দিকে তাকিয়ে। একাই এসেছিলেন উমাদেবী শশ্বানভুমিতে, চিতার আগুনে স্বামীর দেহ বিলীন করে দিয়ে একাই নিজে নিজের কপালের সিদুর মুছলেন, নিজেই ভেংগে ফেললেন নিজের হাতের মংগল শাখা, বিধবা বেশে একাই রওনা দিলেন বাড়ির পথে। সে জানে বাড়িতে কেউ নেই আজ, শুধু আড়াই বছরের সন্তান।
ভালো থাকুক উমা, ভালো থাকুক তার শিশুটি।
আপনাকে/আমাকে সেবা দিতে গিয়ে অনেক উমায় বিধবা হবে, অনেক সন্তানই পিতাকে হারাবে, মা হারাবে সন্তানকে।
তাদেরকে যেন আমরা মনে রাখি ।

নিউজ লাইন ৭১ বিড


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বিশ্বে করোনা ভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৪০৭,৬৮৪
সুস্থ
৩২৪,১৪৫
মৃত্যু
৫,৯২৩
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
৪৫,৫৭৬,৯৯০
সুস্থ
৩০,৫৬৯,০০৬
মৃত্যু
১,১৮৮,৭৮৭