ছয়জনে একজন পুষ্টিহীন ‘ইমিউনিটি’ যেন আকাশের চাঁদ! – newsline71bd
শিরোনাম
রামগঞ্জে নিজস্ব অর্থায়নে এমপি আনোয়ার খানের কম্বল ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ… রামগঞ্জে নৌকার বিজয়ে আওয়ামীলীগ ঐব্যবদ্ধ!! ড. আনোয়ার হোসেন খান এমপি… প্রতারকের খপ্পরে পড়ে রিক্সা খোঁয়ানো দুলাল মিয়াকে নতুন অটোরিক্সা প্রদান।। নাটোরের সিংড়ায় চৌগ্রাম ইউনিয়নে হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান,ঐক্য পরিষদ গঠন। নাটোরে বড়হরিশপুর ইউনিয়নে ছাত্রলীগ নেতার উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতারণ… রামগঞ্জে নবাগত শিক্ষকদের বরন করে নিলেন সহকারী প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি।। রামগঞ্জে গৃহবধু নির্যাতনের বিচার চাইতে এসে হামলার শিকার ৩মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান।। ওসির সাথে রামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সদস্যদের মতবিনিময়!! অসম্ভবকে সম্ভব করে বাংলাদেশ আজ বিশ্বকে দেখিয়ে দিয়েছে আমরাও পারিঃ সেতুমন্ত্রী!! পদ্মার বুকে স্বপ্নের পুরো সেতু দৃশ্যমান!!
বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৫৮ পূর্বাহ্ন

ছয়জনে একজন পুষ্টিহীন ‘ইমিউনিটি’ যেন আকাশের চাঁদ!

রিপোটারের নাম / ৮০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০

করোনো প্রতিরোধে ইমিউনিটি বা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তো দূরের কথা উল্টো দেশের প্রতি ছয়জনের একজন ভুগছেন অপুষ্টিতে। দারিদ্র্যতা, খাবারের দাম বাড়ার পাশাপাশি অজ্ঞতাকে দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা। আর জাতীয় পুষ্টি ইনস্টিটিউট সীমাবদ্ধ শুধু প্রচার-প্রচারণায়।

জীবন বাঁচাতে তিন বেলা ডাল-ভাত জুটাতেই প্রতিনিয়ত যুদ্ধে নামতে হয় এসব মানুষদের, সেখানে ইমিউনিটি বা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো কথা বলা, অনেকটাই যেন পরিহাসের মতো শোনায়।

জাতিসংঘের এফএও, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং আইএফডি’র প্রতিবেদন বলছে, বাংলাদেশের ২০০৪-০৬ সালে অপুষ্টির শিকার মানুষের সংখ্যা ছিল ২ কোটি ৩৮ লাখ, ২০১৮ সালে সেই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ৪২ লাখে। আর এর অন্যতম প্রধান কারণ বিপুল সংখ্যক মানুষ দারিদ্র্যের কারণে পুষ্টিকর খাবার জোগান দিতে পারছে না।

আরো পড়ুনঃ ‘করোনার চেয়েও অনাহার-অপুষ্টিতে মৃত্যু হবে বেশি’

গবেষকরা বলছেন, দাম বেড়ে যাওয়া এই শ্রেণির মানুষ মাছ, মাংস, ডিম, দুধ বা দুগ্ধ জাতীয় পণ্য কম খায় আবার সাধারণ খাবারও পরিমাণে কম খায়। অপুষ্টিকর খাবার খেতে বাধ্য হয় তারা। এছাড়া আছে ভেজাল ও অনিরাপদ খাবারের দৌরাত্ম্য।

করোনাকালে যেখানে প্রতিনিয়ত বলা হচ্ছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে। প্রতিদিন অন্তত একটি ডিম, দুধ, প্রচুর পরিমাণ প্রোটিন, রসালো ফল রাখতে সেখানে বাংলাদেশের দারিদ্র্যসীমার নিচে থাকা এই মানুষগুলোর খাদ্য তালিকায় খুব সামান্যই জোটে।

ড. সুমাইয়া মামুন বলেন, ভেজাল বা যে কোনো কেমিকেলমুক্ত খাদ্য সেটা কিভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

আরো পড়ুনঃ ‘দেশের প্রতি ছয়জনের একজন অপুষ্টিতে ভুগছে’

জাতীয়তা পুষ্টি ইনস্টিটিউট বলছে, প্রতিটি উপজেলায় পুষ্টি ইউনিটের মাধ্যমে জনসচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি ভিটামিন জাতীয় ওষুধ সরবরাহ করেন তারা।

জাতীয়তা পুষ্টি ইনস্টিটিউট পরিচালক ড. মোশাররফ হোসেন বলেন, ২৬১ উপজেলায় পুষ্টি ইনস্টিটিউট আছে। এখানে বিভিন্ন রকমের ট্যাবলেট আছে যা আমরা বিতরণ করি।

এছাড়া দেশব্যাপী ব্যাপক প্রচার-প্রচারণার জন্য প্রতি বছর ২৩ এপ্রিল থেকে ২৯ এপ্রিল জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ পালণ করা হয় বলেও জানান এ উর্ধ্বতন কর্মকর্তা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বিশ্বে করোনা ভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৫২৯,৬৮৭
সুস্থ
৪৭৪,৪৭২
মৃত্যু
৭,৯৫০
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
৯৫,৪২৯,৬৬০
সুস্থ
৫২,৩৮৫,৩৬৪
মৃত্যু
২,০৩৮,৮০৯